জামদানি শাড়ির খুঁটিনাটি

নারীদের উৎসব মানেই শাড়ি। নারী যেন শাড়িতেই অপরূপা ও সুন্দর। যেকোনো উৎসব ও অনুষ্ঠানে পরার জন্য নারীদের প্রথম পছন্দ জামদানি শাড়ি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। যেকোনো বয়সের নারীরা জামদানি শাড়ি পরতে ভালবাসে। তাছাড়া শাড়ির কারুকাজ ও সৌন্দর্যের জন্য জামদানি বেশি বিখ্যাত। শুধু বর্তমানে নয়, অতিপ্রাচীনকালেও জামদানি শাড়ি বেশ বিখ্যাত ছিল। মূলত মুঘল আমলে জামদানির প্রচলন ছিল। এর অনন্য বৈশিষ্ট্য, মিহি সুতা ও দক্ষ কারিগরের দক্ষ কাজের কারণে পৃথিবীব্যাপী জামদানি শাড়ির সুখ্যাতি ছিল।

জামদানি বলতে মূলত শাড়িকে বোঝানো হলেও জামদানির জামা, ওড়না, কুর্তি ইত্যাদিও রয়েছে। জামদানি শব্দটি মূলত ফার্সি শব্দ থেকে এসেছে। ফার্সি জামা অর্থ কাপড় এবং দানা অর্থ বুটি । সে অর্থে জামদানির অর্থ দাঁড়ায় বুটিদার কাপড়। মনে করা হয় ভারত উপমহাদেশে সর্বপ্রথম মুসলমানেরা জামদানি শাড়ির প্রচলন ও বিস্তার শুরু করেন। আরেকটি মতে ধারণা করা হয় জাম পরিবেশনকারী ইরানি সাকির পরনের মসলিন কাপড় থেকে জামদানি কাপড়ের নামের উৎপত্তি হয়েছে।

ইতিহাস থেকে জানা যায় ঢাকার গোড়াপোত্তনের আগেই নারায়নগঞ্জে জামদানি শাড়ির প্রচলন শুরু হয়। প্রাচীনকালে মসলিন শাড়ির উত্তরাধীকারী হিসেবে জামদানি শাড়ি নারীদের কাছে অতিপরিচিত ছিল। ইতিহাস থেকে জানা যায় ঢাকাই জামদানি রাজধানী ঢাকার ইতিহাস থেকেও পুরনো। ১৬১০ সালে যখন সুবেদার ইসলাম খান তার রাজধানী রাজমহল থেকে ঢাকায় স্থানান্তর করেন এবং তখন থেকেই ঢাকার উৎপত্তি। অথচ জামদানির উৎপত্তি আরো অনেক আগে থেকে।

জামদানি শাড়ির বৈশিষ্ট্য

  • মসলিন শাড়ি ও জামদানি শাড়ির মধ্যে তেমন কোনো পার্থক্য নেই। জামদানি ও মসলিন শাড়ি একই প্রজাতির। মসলিন থেকে জামদানির অনন্য বৈশিষ্ট্য হলো এর পাড় বুননে ব্যবহার করা হয় অসংখ্য সুতা ও মোটা বুনন যা দেখতে চমৎকার।
  • জামদানি শাড়ির রয়েছে বৈশিষ্ট্যমূলক জ্যামেতিক প্যাটার্নের ধারাবাহিকতা যা ইরানি প্রভাবে প্রভাবিত এবং এর মোটিফ অর্থাৎ এটি বুননের সময় কাপড়ে খুব সুন্দরভাবে বসে যায়।
  • জামদানি শাড়ি বুনন, নকশা ও ঐতিহ্যের কারণে বিখ্যাত। জামদানি শাড়ির পাড়গুলোও বেশ কারুকার্যখচিত। জামদানি শাড়ির জমিনের নকশা মূলত তিনটি শ্রেণিতে বিভক্ত। যেমন বুটা, জাল ও তেছড়ি। শাড়িতে ব্যবহৃত জনপ্রিয় অনুষঙ্গগুলো হলো শাপলা, ফড়ং ফুল, শঙ্খমতি, সিঙ্গাড়া ও বেলপাতা।জামদানি শাড়ির পাড়েও রয়েছে ভিন্নতা যেমন করলা পাড়, কলকা পাড় ইত্যাদি।
  • পূর্বে তাঁতিরা স্মৃতি থেকেই জামদানি শাড়ির কারুকাজ আঁকতেন। বর্তমানে কাগজে নকশা এঁকে পরে শাড়িতে রূপদান করা হয়।
    নকশা অনুযায়ী বিভিন্ন জামদানি বিভিন্ন নামে পরিচিত। যেমন কলমিলতা, ময়ূর প্যাচ, কচুপাতা, পুঁইলতা, তেরছা, জালার, ডুরিয়া, শাপলাফুল, জুঁইবুটি, বাঘনলি, ঝুমকা, চন্দ্রহার, হংস, প্রজাপতি পাড়, চালতা পাড়, পান্না হাজার, দুবলি জাল, বুটিজাল, ইঞ্চি পাড়, বিলাই আড়াকুল নকশা, বেলপাতা পাড়, জবাফুল, শামুকবুটি, কচি পাড়, চন্দ্রপাড়, কলস ফুল ইত্যাদি। বর্তমানে শাড়ির জমিনে পদ্দমফুল গোলাপফুল, জুঁইফুল, সাবুদানা, আদারফানা, কলারফানা ইত্যাদি নকশা আঁকা হয়।
  • তেরছা জামদানিতে ছোট ছোট ফুলগুলো তেরছাভাবে আঁকা হয়, জালার নকশার জামদানিতে ফুল, লতাপাতার বুটিজাল বুননের মতো সমস্ত জমিনে কাজ থাকে, ডুরিয়া জামদানিতে থাকে ডোরাকাটা নকশা। ফুলওয়ার জামদানি শাড়িতে থাকে অনেক ফুলের নকশা।

জামদানি শাড়ির প্রকারভেদ

জামদানি শাড়ি দুই ধরনের হয়। হাফসিল্ক জামদানি ও ফুল কটন জামদানি। হাফসিল্ক জামদানিতে আড়াআড়ি সুতাগুলো হয় রেশমের এবং লম্বালম্বি সুতাগুলো হয় সুতার। ফুল কটন জামদানি শাড়ি পুরোপুরি তুলোর তৈরি সুতার হয়। হাফসিল্ক এবং ফুল কটন প্রতিটি জামদানি শাড়ি দেখতে চমৎকার এবং কারুকাজ অসাধারণ।

ব্যবহার ও যত্ন

জামদানি শাড়ি শুধু পরে রেখে দিলেই হবে না, চাই বিশেষ যত্ন। জামদানি শাড়ি পরার পর ভালোভাবে বাতাসে শুকিয়ে আলমারিতে তুলে রাখতে হবে। তবে কিছুদিন পর পর শাড়ি বের করে বাতাসে শুকাতে হবে কিংবা আপনি চাইলে রোদে শুকাতে পারেন। নয়তো শাড়ি্তে সাদা সাদা ছোপ পড়বে এবং কিছুদিনের মধ্যে ফেসে যাবে।

তাই জামদানি শাড়ি অনেক দিন ভাজ করে কিংবা হ্যাঙারে ঝুলিয়ে না রাখাই ভালো। অন্যান্য শাড়ির মতো জামদানি শাড়ি বাসায় ধোলাই করবেন না। কেননা বাসায় শাড়ি ধুলে তা অতি দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। শাড়ি অনেক দিন ব্যবহার করার জন্য ড্রাইওয়াশ করা ভালো। আর কিছু দিন অর্থাৎ এক দুই মাস পর পর শাড়ি রোদে দিলে ফাঙাসের আক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।

অনেকে জামদানি শাড়ির নিচের দিকে ফলস লাগায় যেন দ্রুত শাড়ি নষ্ট না হয় এবং হাঁটার সময় শাড়ি উড়ে না যায়। আপনিও চাইলে পাড়ে ফলস লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে করে ব্যবহারের সময় ময়লা লেগে শাড়ি নষ্ট হবে না। শাড়ির কোথাও যদি দাগ লাগে তাহলে পানি দিয়ে কিংবা হাত দিয়ে না ঘষে ট্যালকম পাউডার ছিটিয়ে দিয়ে পরে তা ড্রাই ওয়াশ করাতে হবে।

জামদানির প্রাপ্তিস্থান

জামদানি শাড়ি এখন অনেক জনপ্রিয়। প্রায় প্রতিটি বড় মার্কেট, ফ্যাশন হাউজ ইত্যাদি সব জায়গায় জামদানি শাড়ি পাওয়া যায়।  বর্তমানে অনেক অনলাইন পেইজে জামদানি শাড়ি পাওয়া যায়।

Starting Tips Your Online Shopping Collection

In recent years, shopping handbags have gained increased popularity. It is a trend which shows that the entire culture of today is on the look out for various fashionable things. So if you are keen to set up your own collection of handbags, then it is important that you know how to do so.

First and foremost, you must search for the best deals that are available in the market. You can look for these by searching through the internet and also visit the local stores. Also, you must try your best to contact various manufacturers and get the best discounts. With a perfect combination of these techniques, you can easily find good quality bags at low prices.

Secondly, you should be very meticulous while choosing your favorite handbags. There are different types of shopping bags available in the market. It is a fact that they come in a wide range of sizes and shapes. Hence it is essential that you must consider the basic necessities while choosing the handbags.

It is wise to consider your budget when choosing the handbags. It is also important to see if you can reuse them after they are used for a certain period of time. With proper storage, the bags may look brand new but once they get soiled or cleaned, they will come back into their original look.

Last but not the least, you must consider the purse that you like the most. If you can create a balanced blend of style and practicality, then all the better. In the end, the best of shopping bags will come in handy for you. If you are interested in fashion, then shopping handbags should be done with the passion that will make you see great things.

With such good deals, the prices of these bags are now very low, so it is very easy to choose the ones that would suit your needs. There are lots of different styles and designs to choose from, so it is advisable to shop around.

So don’t miss out on the amazing discounts which are available online. If you are keen on starting your own online shopping collection, then you can check out the World Wide Web and find the most excellent discounts in the shortest possible time.

Best Way to Shop on Internet

Shopping online has certainly become a popular and successful idea among most people. If you’re one of those who’s planning to go on a trip or to just shop for a vacation, it’s much easier than in the past because you can search your favorite stores and shops for buying products from there.

You need to make sure that the website that you are going to check out will offer you with all the things that you’re looking for and also will satisfy you. This will guarantee you that you will get all the things that you’re looking for. A popular website that is available these days is SaleHoo. You can find this in any search engine but the most of the time SaleHoo is placed at the top of the list.

On the other hand, SBS is another famous and well-known site where you can find wholesale manufacturers and wholesalers. This is done to ensure that you’ll have the best possible shopping experience. You will find all the goods that you’ll need in this site where you will be able to buy everything from clothing, shoes, mobile phones, watches, etc.

When you go through this site, you will see that it can help you in saving a lot of money because you’ll be able to save up to 80% by purchasing the goods that you want to purchase at SBS. Also, SaleHoo and SBS have an agreement in place with each other, so that you won’t find any complaints against any business that you purchased. So, all of this can be quite convenient and helpful for you.

Although SaleHoo and SBS both have the same features and benefits, it’s important that you know the differences between them. There are many advantages of these two sites which you need to know.

One big advantage of SaleHoo is that you will not require to wait for several days until you can check out products and goods because you’ll have it instantly. When you go to SBS, you will be required to go through several weeks before you can actually buy the goods. In SaleHoo, you can buy products and goods right away and you don’t have to wait to see if the goods are available. Besides, you can also access this site from your computer so you will not have to worry about the internet connection problems.

Moreover, you need to make sure that you’ll save up to 80% by choosing the goods and merchandise that you want from SaleHoo and SBS. Most of the time, you’ll find all the goods in these two sites so that you can get a great experience and that you will have a great shopping experience. If you’ve decided to go with these two sites, you’re sure to have a very good experience shopping on the internet today.

Online Shopping – An Alternative Shopping

In case you love shopping for clothes or accessories but have the anxiety of having to spend a lot of time in front of the store, you may want to think of going online. These days, many stores have been offering Internet as their main marketing strategy so that they can compete with the big stores.

Although shopping in the Internet is somewhat cheaper than in the mall, you will still be spending more time in front of the store. If you are planning to shop for something specific, you may want to look for a general website that offers a wide range of merchandise. Once you get familiar with the online shopping experience, you may feel that shopping in an Internet shop is more comfortable than shopping in the mall.

Another reason why many people choose to shop online is because of the convenience of having all the items ready at your fingertips. You can just click the mouse and browse through the different sites of a retailer you like. Also, you can do a search or look for a particular brand and you will be given all the information about the item you are looking for right at your fingertips.

On the other hand, malls offer a much bigger selection and the prices are usually cheaper than those on the Internet. They also offer the same services. However, if you want to save some money on the shopping spree, you can always consider going online. You can find a wide variety of products and everything is right at your fingertips.

Another advantage of shopping in the Internet is that it is quite easy to order your products. Instead of standing in a long line at the mall, you just have to go online and simply type in the product you are looking for. You can also check for coupons and discounts, if you are looking for a gift for someone.

Shopping online also offers you the option of being flexible. Instead of staying in one place or the mall, you can now shop from the comfort of your home. You can just go there if you have some extra time and when you find the item you want, you can easily purchase it without any problem.

Finally, you can enjoy the convenience of being able to shop anytime, anywhere as you can use the Internet to check out the best deals. In fact, many malls have their own websites where they offer special offers and discounts. So, you can use the Internet to find a good deal without having to leave your house.

As a conclusion, shopping online is quite beneficial especially for those who love shopping but hate the tension of spending so much time in front of the store. These days, shopping is not as easy as it used to be and malls are closing down. It’s time for you to get the best deals and shopping has never been easier than it is today.